শেখ সাদীর গল্প

শেখ সাদীর গল্প pdf বই ডাউনলোড। অমর কবি শেখ সাদী। ফার্সি ভাষায় কাব্য রচনা করে তিনি পৃথিবী বিখ্যাত। তার লেখা গুলিস্তাঁ ও বুস্তাঁ বিশ্বসাহিত্যে উজ্জ্বল স্থান অধিকার করে আছে। গুলিস্তাঁ ও বুস্তাঁ অর্থ-ফুলেন বাগান ও সৌরভের উদ্যান। বই দুটিতে রয়েছে মনোরম ছন্দে বাধা কতগুলো ছোট ছোট গল্প।

এই গল্পগুলোর অধিকাংশই উপদেশমূলক। গল্পচ্ছলে উপদেশ কিংবা উপদেশচ্ছলে গল্প বলাই ছিল হয়তো সাদীর উদ্দেশ্য। কিন্তু এগুলো কাব্য হিসেবে অতুলনীয় হয়ে উঠেছে, গল্প হিসেবে তো বটেই। ফার্সিভাষায় লেখা এই সমস্ত কবিতা শত শত বছর ধরে পাঠকদের মনে আলোড়ল সৃষ্টি করেছে। পৃথিবীর বিভিন্ন ভাষায় শেখ সাদীর রচনা অনূদিত হয়েছে।

আরও দেখুনঃ মহিলাদের নামাজ pdf বই

শেষ সাদী জন্মগ্রহন করেছিলেন ইরান দেশে। ধনে-মানে শিক্ষা-জ্ঞানে গৌরবে-ঐতিহ্যে একসময় ইরান ছিল খুব উন্নত দেশ। ইরানের তদানীন্তন রাজধারী সিরাজী নগরে ১১৯৪ সালে সাদীর জন্ম। সাদীর বাবা ছিলেন সম্ভ্রান্ত রাজকর্মচারী। শৈশবেই সাদাীর বাবা-মা মারা যান। এতে পারিবারিক অবস্থা খুব খারাপ হয়ে যায় ।

সাদী অবশ্য ছিলেন সকল কিছুর উর্ধ্বে। জ্ঞানার্জনের জন্য তিনি ত্যাগ করেছিলেন ভোগবিলাস। জগতের ঐশ্বর্য, রাজার অনুগ্রহ ও সম্মান পার্থিব সুখ যশ ও অর্থকে তুচ্ছ করে প্রকৃত দরবেশের মতো তিনি জীবনযাপন করেছেন। জীবনের শেষদিনগুলো কাটিয়েছেন সামান্য পর্ণকুটিরে সাধনাকেন্দ্রে-একা নিঃসম্বল অবস্থায়।

আরও দেখুনঃ গুলিস্তা শেখ সাদী pdf বই

তিনি নির্জনে বসে কাব্যচর্চা করতেন। আর জ্ঞান সাধনার জন্য তীর্থযাত্রা করতেন। তিনি পায়ে হেটে ১৫ বার মক্কা গিয়েছিলেন। এছাড়া আরব পেরিয়ে আবিসিনিয়া পর্যন্ত এর এধারে ভারতবর্ষ পর্যন্ত ভ্রমন করেছিলেন। তাকে টাকা দেবার লোকের অভাব ছিল না কিন্তু তিনি কোনোদিনই নিজের জন্য টাকা নেননি। ভক্তদের দেয়া খাদ্য ও সামান্য অর্থসাহায্যেই তার দিন চলে যেত

সাদী ছিলেন মহাপন্ডিত। দেশভ্রনণের ফলে বহু বিচিত্র অভিজ্ঞাতা হয় তার। তার ছিল অসামন্য পর্যবেক্ষন-ক্ষমতা জীবনদৃষ্টি এবং মানবপ্রেম। জিবন অভিজ্ঞাতাকেই তিনি লিপিবদ্ধ করেছেন কবিতা-আকারে ।

আরও দেখুনঃ শেখ সা‘দী pdf বই ডাউনলোড

নিচে শেখ সাদীর গল্প pdf বই ডাউনলোড এর স্ক্রীনশট ও ডাউনলোড লিংক দেওয়া হলোঃ

প্রকাশকঃ বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্র
বইয়ের ধরণঃ গল্প বিষয়ক
বইয়ের সাইজঃ 2.03 MB
প্রকাশ সালঃ ২০১৮ইং
বইয়ের লেখকঃ আমিরুল ইসলাম
অনুবাদঃ
ডাউনলোড সার্ভার-১ঃ Download Now

ডাউনলোড করতে কোন সমস্যা হলেঃ

Join Our Facebook Group